ডলার এন্ডর্সোমেন্ট

ডলার এন্ডোর্সমেন্ট করার বিস্তারিত নিয়ম

Last updated on May 21st, 2019 at 04:08 am

আপনি যেহেতু আমার ব্লগের এই পোস্টে এসে পড়েছেন তার মানে আপনি ডলার এনডোর্সমেন্ট সম্পর্কে জানতে চান। ডলার এনডোর্সমেন্ট কি, কেন করতে হয়, কোথা থেকে, কিভাবে করবেন, কি নিয়ম কানুন ইত্যাদি আমি সব এই পোস্টে জানাবো। আপনি একবার মনোযোগ দিয়ে পড়লেই সব পরিষ্কার বুঝতে পারবেন।


ডলার এনডোর্সমেন্ট কি ও কেন করতে হয়

এনডোর্সমেন্ট মানে হল কোন কিছুর অনুমোদন দেয়া। ডলার এনডোর্সমেন্ট হল ডলার কেনার অনুমোদন বা সার্টিফিকেট বলতে পারেন। আপনি ইচ্ছে করলেই ডলার কিনে ঘুরতে পারেন না। ডলার কিনতে হলে আপনাকে সেটা পাসপোর্টে এনডোর্স করে কিনতে হবে। মানে আপনি টাকা দিয়ে ডলার কিনলেন এবং সেটা কবে, কার নিকট থেকে কিনলেন তার প্রমাণপত্রই হল এনডোর্সমেন্ট।

বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমোদিত ডিলার, মানি এক্সচেঞ্জ, ব্যাংক ছাড়া অন্য কারো আইনত ডলার বা অন্য কোন বৈদেশিক মূদ্রা ক্রয় ও বিক্রয় অবৈধ। তাই বুঝতেই পারছেন ডলার এনডোর্স্মেন্ট কেন করতে হয়?

আর আপনার মনে হতে পারে আমি ডলার এনডোর্স কেন করব? আরে ভাই আপনি যখন বিদেশে ঘুরতে যাবেন তখন তো ডলার নিয়ে যেতে হবে তাই না? বাংলাদেশি টাকা নিয়ে তো আর সব খরচ মেটাতে পারবেন না কারণ বৈধভাবে ১০০০০ টাকার বেশি আপনি দেশ থেকে বিদেশে নিয়েও যেতে পারবেন না আবার বিদেশ থেকে নিয়ে দেশে ও ঢুকতে পারেবন না। রেফারেন্স  বাংলা ট্রিবিউন

পাসপোর্টে ডলার এনডোর্স করার উপায়

তো আপনার মনে প্রশ্ন এখন ডলার এন্ডোর্সমেন্ট কোথায় করতে হয়, তাইনা? ডলার এনডোর্স্মেন্ট করার জন্য আপনাকে যেকোন ব্যাংক বা মানি এক্সচেঞ্জ এর নিকট যেতে হবে। নিচে এই দুই টাইপের প্রতিষ্ঠান থেকে কিভাবে এনডোর্স করবেন তা বিস্তারিত বলা হল। পাসপোর্ট এন্ড্রোসমেন্ট বা পাসপোর্টে এনডোর্স সবই এই ডলার এনডোর্স্মেন্ট। একেকজন একেক ডাকনামে ডাকে আরকি। 🙂

ব্যাংক

সরকারি বেসরকারি যেকোন ব্যাংক থেকেই আপনি ডলার এনডোর্স্মেন্ট করতে পারেন। তবে সাধারণত সরকারি সোনালি ব্যাংক থেকে করাটাই সুবিধাজনক ও বেশিরভাগ মানুষ করে থাকে। এজন্য আপনাকে সোনালি ব্যাংকের কর্পোরেট শাখাগুলোতে যেতে হবে। ঢাকার মতিঝিল শাখায় করা যায়। তাই আপনি আগে নিশ্চিত হয়ে নিন আপনার শাখায় করা যায় কিনা।

আপনি পাসপোর্ট নিয়ে ব্যাংকে গিয়ে বললেই হবে যে আপনি ডলার কিনবেন। তাহলে ওরা আপনাকে ওইদিনের রেট অনুযায়ী টাকা হিসেব করে আর সার্ভিস ফি নিয়ে ডলার দিবে ও পাসপোর্টের শেষের দিকে পাতায় সিল মেরে দিবে। সাথে একটা কাগজ দিবে এটা হল ‘এনডোর্স্মেন্ট সার্টিফিকেট’।

ফি লাগবে ২০০-৩০০ টাকা

সরকারি ব্যাংকের মধ্যে একমাত্র সোনালি ব্যাংকেই কোন একাউন্ট ছাড়াই শুধু পাসপোর্ট নিয়ে যে কেউ ডলার এনডোর্স করতে পারবেন। তবে অন্য সব সরকারি ব্যাংকে আপনার নিজের নামে একাউন্ট থাকা লাগবে।

আর বেসরকারি ব্যংকে একটু ঝামেলা আছে। ডলার সাধারণত লোকাল শাখাগুলোতে দেয় না। লোকাল শাখা থেকে একটা ফরোয়ার্ডীং লেটার নিয়ে ব্যাংকের ঢাকাস্থ মেইন ব্রাঞ্চ বা ‘ফরেইন এক্সচেঞ্জ’ শাখা থেকে ডলার এনডোর্স করতে হবে।

আমার ভাই ডাচ-বাংলা ফরিদপুর শাখা করাইছিল। সে ওখান থেকে ফরোয়ার্ডীং লেটার নিয়ে এসে ঢাকার ডাচ-বাংলার মতিঝিলের ফরেইন এক্সচেঞ্জ শাখা থেকে ডলার নিয়েছিল। তার ইন্ডিয়ান ভিসা আগেই হয়ে গিয়েছিল, তাই আমি তখন জানলে মানি এক্সচেঞ্জ থেকেই ডলার নিতাম। এখন মানি এক্সচেঞ্জ থেকেই নিই যখন লাগে।তাই আমি পরামর্শ দিব আপনি আগে আপনার ব্যাংকে যোগাযোগ করে দেখুন তাদের প্রসেস কেমন।

মানি এক্সচেঞ্জ

আর মানি এক্সচেঞ্জ থেকে ডলার কেনা বা এনডোর্স করা খুবই সহজ ও ঝামেলা মুক্ত। আপনি শুধু পাসপোর্ট নিয়ে গেলেই হবে ওরা ওই ব্যংকের মতই ওইদিনের রেট অনুযায়ী টাকা হিসেব করে আর সার্ভিস ফি নিয়ে ডলার দিবে। তবে ওরা আগে জিগ্যেস করে ভিসা আছে কিনা, কারণ অনেকেই আবার ব্যাংক স্টেটমেন্ট না দিয়ে ডলার এনডোর্স্মেন্ট দিয়ে ইন্ডিয়ান ভিসা আবেদন করে। কিন্তু এখন আর মানি এক্সচেঞ্জ এর ডলার এনডোর্স্মেন্ট দিয়ে ইন্ডিয়ান ভিসা আবেদন করা যায় না। তাই মনে রাখবেন ইন্ডিয়ান ভিসা আবেদন করতে ব্যাংক স্টেটমেন্ট বা কোন ব্যাংকের ডলার এনডোর্স্মেন্ট লাগবে।

মানি এক্সচেঞ্জ থেকে আপনি এনডোর্স্মেন্ট ছাড়াই ডলার কিনতে পারবেন। যদিও ব্যাপারটা আমার মনে হয় অবৈধ তারপরেও ওরা করে। অবশ্য আপনার লাভ হল আপনার প্রায় ২০০-৩০০ টাকার মত বেচে যাবে। তাই আপনি চাইলেও ওরা এই ফির বিনিময়ে পাসপোর্টের শেষের দিকে পাতায় সিল মেরে দিবে ও সাথে এনডোর্স্মেন্ট সার্টিফিকেট দিবে। তবে সাথে বলে দেই এনডোর্স্মেন্ট ছাড়া ডলার কেনা অবৈধ আর অনেক সময় বর্ডারে এনডোর্স্মেন্ট সার্টিফিকেট দেখতে চায়।

ডলার এনডোর্সমেন্ট সংক্রান্ত বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা

আচ্ছা আপনি কি জানতে চাননা আমাদের সকল ব্যাংকিং ও মূদ্রা ব্যাবস্থা নিয়ন্ত্রণকারী ব্যাংক ডলার কেনাবেচা নিয়ে কি কি নির্দেশনা দিয়ে রাখছে? চলুন সংক্ষেপে জেনে নিই সবচেয়ে দরকারী বিষয়গুলো।

আমি কত ডলার এনডোর্স করতে পারব?

আমরা সাধারণত বিদেশ কেন যাই? ভ্রমণ, চিকিৎসা বা ব্যবসার জন্য তাই না? তাহলে জেনে নিন কোন বিষয়ের কি লিমিট।

বিদেশ ভ্রমণ

ঘুরতে যাবেন? খুব মজা তাই না? কিন্তু কত ডলার নিতে পারবেন? এই সম্পর্কে বলা আছে কোন ব্যক্তি এক বছরে সর্বোচ্চ ১২,০০০ (বার হাজার) ইউ এস ডলার বা সমমানের বৈদেশিক মূদ্রা এনডোর্স করতে পারবেন।

তবে এই বার হাজার ডলারের মধ্যে একটু শর্ত আছে। আপনি সার্কভুক্ত দেশ এবং মিয়ানমার এর জন্য  ৫,০০০ ইউ এস ডলার বা সমমূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা। আর সার্কভুক্ত দেশ এবং মিয়ানমার ব্যতিত অন্যান্য দেশ এর জন্য ৭,০০০ ইউ এস ডলার বা সমমূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা এনডোর্স করতে পারবেন।

চিকিৎসাজনিত

চিকিৎসার জন্য তো বেশি ডলার দরকার হয়। তাই এটি ব্যাংক থেক করাতে হয়। আর এর জন্য চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রয়োজনীয়  কাগজপত্র দেখিয়ে ১০,০০০ (দশ হাজার) ইউ এস ডলার বা সমমূল্যের বৈদেশিক মুদ্রা এনডোর্স করতে পারবেন। তবে এর চেয়ে বেশি দরকার হলে ব্যাংকের সাথে যোগাযোগ করলেই তারা সব ব্যাবস্থা করে দিবে।

ডলার এন্ডর্সোমেন্ট চিকিৎসা

ব্যবসা

ব্যবসার ব্যাপার আলাদা। ব্যবসার জন্য আপনি বিদেশে গেলে আপনার বিদেশে থাকা খাওয়ার খরচ কিন্তু আপনি আপনার ব্যক্তিগত ভ্রমনকোটা থেকেই পূরণ করবেন। কিন্তু মালপ্ত্র কেনেকাটার পেমেন্টের জন্য এলসি করতে হয়। এই ব্যাপারে এখনো বেশি কিছু জানি না তা জানাতে পারছি না। আর এই পোস্ট প্রধানত ভ্রমণকারীদের জন্য তাই দরকারো হবে না। তারপরেও এলসি সম্প্ররকে জানতে এই লিংকে ক্লিক করুণ।

ইন্ডিয়ান ভিসার ডলার এনডোর্স

ইন্ডিয়ান ভিসার ডলার এনডোর্স এর ব্যাপারে উপরেই বলেছি। আপনি যদি ভিসা আবেদন করার জন্য ডলার এনডোর্স করতে চান তাহলে মানি এক্সচেঞ্জ থেকে করালে হবে না। যেকোন ব্যাংক থেকে করাতে হবে। ভিসা আবেদনের জন্য কমপক্ষে ১৫০ ডলার এনডোর্স করতে হবে। আর ব্যাংক একাউন্ট থাকলে ব্যাংক স্টেটমেন্ট দিয়ে করুন।

আপডেটঃ আপনাদের জন্য সুখবর হচ্ছে এখন আইভিএসি ঢাকা ও আইভিএসি চট্টগ্রামে সকাল ৯.০০ টা থেকে বিকাল ৪.০০ টা পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ভ্রমণ কার্ড এবং ডলার এন্ডোর্স্মেন্ট করতে পারবেন।

শেষকথা

ডলার এন্ডোর্সমেন্ট নিয়ে আমার মনে যেসব প্রশ্ন এসেছে তার উত্তর দেয়ার চেষ্টা করেছি। তারপরেও আরো কোন প্রশ্ন থাকলে করুন। আমি উত্তর দিব। প্রশ্নের জন্য সাইটের মেইন কমেন্ট বক্সে প্রশ্ন করলে আমার কাছে ইমেইলে নোটিফিকেশনে আসবে তাই দ্রুত উত্তর দিতে পারব। আর ফেসবুক কমেন্ট করলে আমাকে ম্যানুয়্যালি চেক করতে হয়, তাই একটু দেরি হতে পারে।

আর আপনার কাছে যদি আপডেট তথ্য থাকে  অথবা কোন তথ্য ভুল মনে হয় তাহলে দয়া করে কমেন্ট করে জানান, আমি আপডেট করব। এতে সবারই উপকার হবে। আমি প্রপার ক্রেডিট দেয়ার চেষ্টা করব।

অনেক ধন্যবাদ মনোযোগ দিয়ে পড়ার জন্য।

নোটিশঃ সম্পুর্ন লেখা কপি করা নিষেধ। কোথাও কোন বিশেষ অংশ সাহায্যের জন্য দিতে পারেন তবে অবশ্যই ক্রেডিট হিসেবে এই পোস্টের লিংক দিবেন। অনেক সময় দিয়ে আপনাদের সুবিধার্ধে এই লেখাটি লিখা হয়েছে, তাই আশা করব কপি পেস্ট থেকে বিরত থেকে লেখকের কষ্টের মূল্য দিবেন। 🙂

Saiful Islam Sohel

ভালো লাগে নিত্য-নতুন বিষয় সম্পর্কে জানতে। লিখতে অনেক ইচ্ছে হয় কিন্তু সময় বের করে লিখতে পারি না। আর কিছু লিখতে পারলে অনেক ভালো লাগে। ২০১৩ সাল থেকে ফ্রিল্যান্স ইন্টারনেট রিসার্চার ও সেলস এসোসিয়েট হিসেবে কাজ করছি আপওয়ার্কে। বর্তমানে বি.এসসি ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ছি ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে। কিন্তু ইঞ্জিনিয়ারিং-এ মন নেই, পড়তে হচ্ছে বলে পড়ছি। ক্যারিয়ারে নিজের মত করে কিছু করতে মন চায়। ভ্রমনের প্রতি আকর্ষন তীব্র আমার।

42 thoughts to “ডলার এন্ডোর্সমেন্ট করার বিস্তারিত নিয়ম”

  1. ভাই, আমি স্টুডেন্ট, ডলার এন্ডোস করতে চাই। আগে ভিসা ফ্রম ফিল করব নাকি আগে এন্ডোস করব? ১৫০ ডলার এন্ডোস করলে হবে? ইন্ডিয়া যাওয়ার সময় কি ডলার দেখাতে হবে? (মানে আমি এন্ডোস করে যদি আবার তা বেচে দেই মানি এক্সচেঞ্জ এ)
    আমার বা বাবা/মায়ের ব্যাংক একাউন্ট নেই তো কি করব?
    আর এন্ডোস/ ব্যাংক স্টেট ছাড়া কি ইন্ডিয়ান ভিসা দেবে?
    ইন্ডিয়া যেতে কত টাকা লাগে বরডারে?(মানে ভ্রমন কর বা অন্য কোন খরচ?)

    1. জয় ভাই, ভিসা ফর্ম আগেও ফিল করতে পারেন আবার পরেও ফিল করতে পারেন। ভিসা ফর্মে কোথাও ডলার এন্ডোর্সের কোন তথ্য লাগে না।

      জ্বি, ইন্ডিয়া ভিসা বেদনের জন্য ১৫০ ডলার এন্ডোর্স করলেই হবে।

      ডলার দেখাতে হয় না সাধারণত। শুধু বাংলাদেশ এর বর্ডারে জানতে চাইবে কত ডলার নিচ্ছেন। আর দেখতে চাইতেও পারে ভাগ্য খারাপ হলে।

      বেচে দিতে পারেন। সেক্ষত্রে তো যখন ইন্ডীয়া যাবেন আবার ডলার কিনতে হবে।

      বা বাবা/মায়ের ব্যাংক একাউন্ট নাই এজন্যই তো ডলার এন্ডোর্স করে ভিসা বেদন করবেন।

      শুধু ভ্রমণ কর লাগে। ৫০০ টাকা। দেখুন ভ্রমণ কি, কত ও কোথায় দিয়ে হয়

  2. ব্যাংক স্টেটমেন্ট দিয়ে ভিসা পাওয়ার পর যাওয়ার আগে ডলার কোথা থেকে এনডোর্স করব? ক্রেডিট কার্ড এনডোর্স করে কি যেকোন জায়গা থেকে ডলার কিনতে পারবো?

    1. ভিসা হয়ে গেলে যেকোন মানি এক্সচেঞ্জ থেকে ডলার কেনাই সহজ ও ঝামেলামুক্ত। ক্রেডিট কার্ড এনডোর্স করলে সেই ক্রেডিট কার্ড দিয়ে কেনাকাটা ও অন্য দেশের সাপোর্টেড এটিএম থেকে সেই দেশের মুদ্রা তুলতে পারবেন। ক্রেডিট কার্ড এনডোর্স করে অন্য জায়গা থেকে ডলার কেনার মাঝে কোন সম্পর্ক নেই।

  3. ডলার এনডোর্স কি ভিসা ফর্ম জমা দেওয়ার পরে করা যায় নাকি আগে করতে হয়?

    1. ব্যাংক স্টেটমেন্ট দিয়ে ভিসা করলে ভিসা ফর্ম জমা দেওয়ার পরে মানে ইন্ডিয়া যাওয়ার আগেই করলেই হবে।

  4. আমার ক্রেডিট কার্ড এ এন্ডোর্স করা আছে । ভিসা ক্রেডিট কার্ডের এন্ডোর্সমেন্ট সার্টিফিকেট দিয়ে করা । কিন্তু ক্রেডিট কার্ড থেকে তো আমি ক্যাশ ডলার পাচ্ছি না ।

    সাথে ক্যাশ ডলার তো আমাকে নিতেই হবে। তাহলে কি আমাকে আবারো মানি এক্সচেঞ্জ/ব্যাংক থেকে ডলার এন্ডোর্স করে (ক্যাশ ডলার ) সার্টিফিকেট নিতে হবে?

    1. ক্যাশ ডলার যদি লাগে তাহলে তো অবশ্যই এন্ডোর্স করতে হবে। সার্টিফিকেট আপনি না নিতে পারেন যদি টাকা বাচাতে চান।

      মানি এক্সচেঞ্জ থেকে আপনি এনডোর্স্মেন্ট ছাড়াই ক্যাশ ডলার কিনতে পারবেন। যদিও ব্যাপারটা আমার মনে হয় অবৈধ তারপরেও ওরা করে। অবশ্য আপনার লাভ হল আপনার প্রায় ২০০-৩০০ টাকার মত বেচে যাবে। তাই আপনি চাইলেও ওরা এই ফির বিনিময়ে পাসপোর্টের শেষের দিকে পাতায় সিল মেরে দিবে ও সাথে এনডোর্স্মেন্ট সার্টিফিকেট দিবে। তবে সাথে বলে দেই এনডোর্স্মেন্ট ছাড়া ডলার কেনা অবৈধ আর অনেক সময় বর্ডারে এনডোর্স্মেন্ট সার্টিফিকেট দেখতে চায়।

  5. আমি মতিঝিল সোনালী ব্যাংক থেকে ১৫০ ডলার এন্ডোস করতে গেলে ওরা আমাকে জানাই নোট হবে না খুচরো (যেমনঃ ৫ ডলার, ১০ডলার,২০ডলার…) হবে, আমি শুনেছি খুচরো ডলারের রেট কম, একথা কতটুকু সত্য এবং এক্ষেত্রে আপনার মতামত কি?

    1. হ্যাঁ আমিও গিয়েছিলাম গত মাসে। ওরা আমাকেও তাই বলেছিল তাই আমি মানি এক্সচেঞ্জ থেকে নিয়েছি। সত্যিই খুচরো ডলারের রেট একটু কম।

  6. ধরুন, ভারত যাওয়ার জন্য ১৫০ ডলার এন্ডোর্স করলাম।কিন্তু এই পরিমাণ অর্থ দিয়ে তো ইচ্চামতো ভারতের যেকোনো স্থানে (যেমন-কাশ্মীর) ঘুরা সম্ভব না,আরো বেশি প্রয়োজন।সেক্ষেত্রে ১৫০ ডলারের বেশি ক্যারি করা কি আইনত বৈধ?বর্ডার ক্রসের সময় কি সমস্যায় পরতে হবে?
    বাই ট্রেন /এয়ারে গেলে কি এই এন্ডোর্সমেন্টের বেশি কম পরিমাণ ডলার নেয়ার ক্ষেত্রে কোনো প্রবলেম ফেস করতে হবে?

    1. আসলে নিয়ম হল ডলার কেনা মানেই এন্ডোর্স করা। আমরা অনিয়ম করতে করতে এখন ডলার কেনা আর এন্ডোর্স করা দুইটা লাদা ব্যাআর করে ফেলেছি। যত এন্ডোর্স করবেন তার বেশি ডলার বহন করা অবৈধ। বর্ডার ক্রসের সময় চেক করে না। শুধু জানতে চায় কত নিচ্ছেন। আর ধরা পড়লেও জানেন তারা শাস্তি দিবে না ঘুষ নিবে। 🙁

      সব জায়গায়ই একই নিয়ম। ঝামেলা হয় না, কারণ ওপেন সিক্রেট হিসেবে এইটাই চলে এখন।

      1. ধরা পড়লে ঘুষ কী পরিমাণ নিতে পারে?
        আর এই চেকিং বা ঘুষ কি শুধুই বাংলাদেশ পার্ট এর ইমিগ্রশনের জন্য প্রযোজ্য নাকি ওপারেও চেক করে?
        আর রুপি কি এদেশে আনার নিয়ম আছে?

        1. এত টেনশন নিয়েন না। ১০০-২০০ এর মত। ওপারে শুধু ডলার আছে নাকি জিগ্যেস করে। না, রুপি ইন্ডিয়ার বাইরে নেয়ার নিয়ম নেই।

          1. ঘুষ দিয়ে যেহেতু পার হওয়াই যায়,সেক্ষেত্রে তো এখানে ১৫০ ডলারের সাথে বাংলাদেশি টাকা আমার প্রয়োজনমতো (২৫-৩০ হাজার) নিয়ে গিয়ে কলকাতা থেকেই ভাঙাতে পারব নাকি?
            আর ট্রেনে/বিমানে গেলে কি এই এন্ডোর্সমেন্ট আর সাথে কত নিচ্ছি চেক করে, ভাই?

      2. ভাইয়া আমি স্টুডেন্ট ভিসাতে ইন্ডিয়া যাব বাট আমার বাবা ও মার কোনো ব্যাংক একাউন্ট নাই সেই ক্ষেএে আমি কি ডলার এনডোসমেন্ট করে স্টুডেন্ট ভিসাতে ইন্ডিয়া যেতে পারবো….??

  7. ঘুষ যেহেতু দেয়াই যায় সেক্ষেত্রে ১৫০ এন্ডোর্স করিয়ে সাথে ১০,০০০ এর অধিক টাকা নিলেও তো সমস্যা নেই, নাকি?
    ট্রেনে/বিমানে গেলে কি এটা চেক করে, ভাই?

    1. সহজ জিনিস কি ভাই, এত ঝামেলা করে টাকা নেয়ার দরকার টা কি? এখান থেকে ডলার নিলে কলকাতায় বেশি রেট পাচ্ছেন, ব্যাপারটা লিগ্যাল, অনেকগুলো নোট নেয়া লাগে না, বর্ডারে ঝামেলার চান্স নাই। এত সুবিধা থাকতেও টাকা কেন নিয়ে যাবেন বুঝি না। আর আমি ঘূষ টুষে অভিজ্ঞ না।

  8. আসসালামুআলাইকুম।
    ভাই আমি আমার এক ছোট ভাইকে
    ৫০০০ হাজার টাকা ও ২ কপি ছবি
    এবং পাসপোর্ট ও একটা বিদ্যুৎ বিলের কাগজ
    দিয়েছি। এখন আমি কি ভিসা পাবো।

    1. ওয়ালাইকুমআসসালাম।
      ছোট ভাইকে দিয়েছেন মানে, সে কি আপনার আবেদন করবে?
      ভিসা পবেন কিনা বলার কোন উপায় নেই। ভিসা দিবে কি দিবে না সেটা ইন্ডিয়ান হাই কমিশনের বিবেচনা। 🙂

  9. ধন্যবাদ ভাই আপনাকে। ভাই আমার একাউন্ট নতুন প্রায় ১.৫ মাস হইসে। আমি একমাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট নিলাম। কিন্তু ইন্ডিয়ান বিসা এপ্লাই করতে নাকি ৬ মাসের স্টেটমেন্ট লাগে। সে ক্ষেত্রে আমি কি করতে পারি?

    1. হ্যাঁ, ছয় বিগত মাসের ব্যাংক স্টেটমেন্ট চায়। আর কমপক্ষে ৩ মাস না হলে ব্যাংক স্টেটমেন্ট দিয়ে ভিসা বেদন না করাই ভাল। আপনি ডলার এনডোর্স করে আবেদন করুন। আপ্নাকেও ধন্যবাদ ভাই কমেন্ট করার জন্য।

      1. ১৫০ ডলার মানি এক্সচেঞ্জ দিয়ে ইন্ডিয়ান ভিসা এপ্লাই করা যাবে না।

  10. ভাই আর একটা প্রশ্ন। আমি যদি ব্যাংক হতে করি তাহলে কি ১৫০ ডলার পরিমাণ বাংলা টাকা নিয়ে যেতে হবে। আর কোন প্রাইভেট ব্যাংকে করা যাবে কিনা।

  11. বাচ্চার বয়স ১০, সাথে ওর মা যাবে, দুই জনের পার্সপোর্টেই কি ডলার এন্ডোর্সমেন্ট করতে হবে নাকি শুধু মায়ের পার্সপোর্টে করলেই হবে?

  12. ভাই এয়ারপোর্টে কি কত ডলার সাথে নিয়েছি তা গুনে দেখে বা সচোখে চেক করে?
    ১,০০০ ডলার এনডর্স করে কি ৪,০০০ ডলার সাথে নেয়া যাবে, না কি এয়ারপোর্টে আটকে দিবে?

  13. আসলে ১৫০ডলার এন্ডোর্স করা তো বিশাল খরচ, আমি যদি মাত্র কয়েক হাজার নিতে চাই তাইলেও কি ১৫০$ এন্ডোর্স করতে হবে? সেক্ষেত্রে খরচ না হউয়া টাকা কী করব?

    1. বিশাল খরচ কোথায়? ২০০-৩০০ টাকা। আপনার উত্তর দেয়া আছে পোস্টে। আপনি নিতে পারেন যত খুশি। তবে এন্ডোর্সের বাইরের এমাউন্ট illegal., কিন্তু এটা আমাদের দেশে দেদারছে চলে।

  14. I’m gonna travel Thailand with my wife, mother in law & my child (1year old). Is endorsement required for every passport?

  15. bhaia assaalamu alaikum.ami rangpur e thaki..ami darjeeling tour dibo.amr tour e 7000tk cost hobe.because olpo diner tour…so aamr visa korar jonno aamr koto tk endrosement kora lagbe??
    or bank account mama r dekhale visa dibe??

    1. অআলাইকুম আসসালাম,
      ভিসা করতে হ্য এন্ডোর্স্মেন্ট লাগে না হয় ব্যাংক স্টেটমেন্ট লাগে।

      এন্ডোর্সমেন্ট করতে হয় মিনিনাম ১৫০ ডলার।

      মামার ব্যাংক স্টেটমেন্ট হয় বলে শুনিনি কখনো।

  16. Hi,

    I want to go with my Wife. She does not have any Bank Statement. Can she apply using my Bank statement? How much should I have for last six month ending balance to get the VISA for both person? Please advise.

  17. vaia by air e jaoar khetre ki doller endorsement joruri. Overall doller endorsement chara gele ki kono problem face korte hobe?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.